• রোববার, ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯
  • ||

যুদ্ধ অবসানে চীনা রাষ্ট্রপতির সাহায্য চান জেলেনস্কি

প্রকাশ:  ০৪ আগস্ট ২০২২, ১০:৫৬
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধ অবসানে চীনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিংয়ের সঙ্গে সরাসরি কথা বলার সুযোগ চাইছেন ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনীয় নেতা যুদ্ধের অবসান ঘটাতে চীনের নেতা জিনপিংয়ের সাহায্য চান। রাশিয়ার ওপর চীনের বিশাল রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক প্রভাব রয়েছে বলে বিশ্বাস করেন জেলেনস্কি।

প্রতিবেদনে ইউক্রেনীয় রাষ্ট্রপতি জেলেনস্কি বলেন, ‘‘চীন একটি অত্যন্ত শক্তিশালী রাষ্ট্র। দেশটি রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিকভাবে রাশিয়াকে প্রভাবিত করতে পারে। এবং চীন জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্যও।’’

এর আগেও একাধিক বার রুশ-ইউক্রেন সংকট নিরসনে চীনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিলেন জেলেনস্কি। এমনকি ইউক্রেনের নিরাপত্তার গ্যারান্টার হওয়ার জন্য চীনের প্রতি আহ্বানও জানিয়েছিল ইউক্রেন। তবে ইউক্রেনের পশ্চিমা সামরিক জোটের সঙ্গে অতি মিত্রতা অথবা রাশিয়ার পক্ষে নিরঙ্কুশ অবস্থানের জন্য সে আহ্বানে সাড়া দেয়নি বেইজিং।

২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রুশ সামরিক অভিযান শুরুর পর থেকেই নিরপেক্ষ অবস্থানে রয়েছে চীন। অবশ্য যুদ্ধ শুরুর আগে ২২ ফেব্রুয়ারি বিবাদমান দু’পক্ষকে শান্ত থাকার এবং উত্তেজনা বাড়াতে পারে এমন কাজ এড়াতে আহ্বান জানিয়েছিল দেশটি।

এমনকি যুদ্ধ শুরুর পর ১৯ এপ্রিল জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে ইউক্রেন সংকট নিরসনে চারটি প্রস্তাবও দিয়েছিল দেশটি। বেসামরিক নাগরিকদের ওপর আঘাত কমানো, কূটনৈতিক আলোচনা ত্বরান্বিত করা, শরণার্থী গ্রহণকারী দেশগুলোকে সমর্থন এবং নিষেধাজ্ঞা প্রক্রিয়া ত্যাগের সুপারিশগুলো উত্থাপন করেছিলেন জাতিসংঘে নিযুক্ত চীনের স্থায়ী প্রতিনিধি জাং চুন।

পশ্চিমা দেশগুলো ইউক্রেনকে সামরিক সহায়তার পরেও দেশটি যুদ্ধে তেমন ভালো করতে পারছে না। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ এখন নাটকীয় মোড় নিয়েছে। ক্রমশ বিপর্যস্ত হয়ে আসা ইউক্রেনের প্রতি পশ্চিমাদের সমর্থন ক্রমেই শিথিল হয়ে আসছে।

পূর্বপশ্চিম/ম

চীন
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close