• সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯
  • ||

বরিস জনসনের প্রধানমন্ত্রিত্ব টেকা নিয়ে সংশয়

প্রকাশ:  ০৬ জুলাই ২০২২, ১৯:৪৯
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মঙ্গলবার দুই ব্রিটিশ মন্ত্রী ঋষি সুনাক এবং সাজিদ জাভিদ পদত্যাগ করেন। প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের ওপর অনাস্থা প্রকাশ করে এ দুই প্রভাবশালী মন্ত্রী সরে দাঁড়ান।

দুই মন্ত্রীর পদত্যাগের পর বরিস জনসনের ওপর পদত্যাগ করার চাপ সৃষ্টি হয়।

তবে বুধবার দেশটির সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে বরিস জনসন সরাসরি বলেছেন, তিনি পদত্যাগ করবেন না।

তিনি উল্টো বলেছেন, এখন দুঃসময় চলছে। আর দুঃসময়ে সরকারের পদত্যাগ করা ঠিক না।

তাকে জিজ্ঞেস করা হয় তিনি পদত্যাগ করবেন কিনা? বরিস জনসন এ প্রশ্নের উত্তরে জানান, তার ওপর যে দায়িত্ব আছে সেটি পালন করতে ব্যর্থ হলে এবং ইউক্রেনকে সাহায্য করার যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সেটি করতে ব্যর্থ হলেই কেবল প্রধামন্ত্রিত্ব ছাড়বেন।

তবে বরিস জনসনের ওপর চাপ প্রয়োগ হচ্ছে। বৃহস্পতিবার সংসদে অন্তত পাঁচজন সদস্য তাকে পদত্যাগ করতে বলেন।

গত ৬ জুন বরিস জনসনের ওপর অনাস্থা জানিয়ে তার নিজ দল কনজারভেটিভ পার্টির সদস্যরা অনাস্থা ভোট আয়োজন করেন। যদিও ওই অনাস্থা ভোটে তিনি জয়ী হন।

কনজারভেটিভ পার্টির নিয়ম অনুযায়ী দলের প্রধানের নেতৃত্বের ওপর একবার অনাস্থা ভোট হলে এক বছরের মধ্যে আরেকবার অনাস্থা ভোট আয়োজন করা যাবে না।

তবে গণমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, বরিস জনসনকে সরিয়ে দিতে নিজেদের এ নিয়মে পরিবর্তন আনছে পারে কনজারভেটিভ পার্টি।

সকলের ধারণা বরিস জনসন বেশিদিন আর প্রধানমন্ত্রী থাকতে পারবেন না।

সূত্র: বিবিসি

পূর্বপশ্চিমবিডি/এআই

ব্রিটেন,বরিস জনসন
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close