• সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮
  • ||

অপারেশন চলাকালে চিৎকার করে কাঁদায় রোগীকে জরিমানা!

প্রকাশ:  ০৩ অক্টোবর ২০২১, ২২:০৬
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

চলছিল আঁচিল অপারেশন। সাধারণ সেই অপারেশন চলাকালে চিৎকার করে কাঁদতে থাকেন এক নারী রোগী। আর এমন আচরণের কারণে জরিমানা গুণতে হলো তাকে। ঘটনা যুক্তরাষ্ট্রের। রোগী নিজেই ঘটনাটি এক টুইটবার্তার মাধ্যমে জানিয়েছেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই নারীর অপারেশনের বিল এসেছিল মোট ২২৩ ডলার বা প্রায় ১৯ হাজার টাকা। তবে এই বিলের মধ্যে ১১ ডলার বা প্রায় এক হাজার টাকা তাকে জরিমানা হিসেবে দিতে হয়েছে।

সম্পর্কিত খবর

    ওই নারী নিজেকে শুধু মিজি হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন। এ নিয়ে টুইটারে একটি পোস্ট দিয়েছেন। তার সেই পোস্ট পুরো যুক্তরাষ্ট্রে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে। একই সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার ভয়াল দশা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

    ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদনে বলা হয়, মিজি নামের ওই নারীর কান্নাকে ‘ব্রিফ ইমোশন’ আখ্যায়িত করে তার কাছ থেকে অতিরিক্ত ১১ ডলার দাবি করা হয়েছে। দেশবাসী একে উদ্ভট ও হৃদয়হীন এক কাণ্ড বলে আখ্যায়িত করেছেন।

    ওই হাসপাতাল থেকে তাকে বিলের যে ইনভয়েস বা রিসিট দেয়া হয়েছে, মিজি তাও শেয়ার করেছেন টুইটার পোস্টে। তিনি ইনভয়েসে ‘ব্রিফ ইমোশন’ নামে ১১ ডলার চার্জ দেখতে পেয়ে তা টুইটারে ছড়িয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন। টুইটবার্তাটি কমপক্ষে ১০ কোটি ৭ লাখ মানুষের লাইক পেয়েছে। রিটুইট করা হয়েছে ৮ হাজার। একেকজন একেকরকম মন্তব্য করেছেন সেই টু্ইটে।

    টুইটবার্তাটির কমেন্টে একজন লিখেছেন, ‘অপারেশন, তা সে যত ছোটই হোক, তা রোগীর স্নায়ুতে নাড়া দেয়। এক্ষেত্রে একজন রোগী তার ধৈর্য হারাতে পারেন। কান্নায় ভেঙে পড়তে পারেন। কিন্তু সেক্ষেত্রে চিকিৎসকের দায়িত্ব তাকে শান্ত রাখতে সর্বশক্তি ব্যবহার করা এবং কর্ম সম্পাদন করা। কারণ, একজন রোগীর ভিতর যে আবেগ বা উৎকণ্ঠা কাজ করে তা তিনি নিজে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন না। ফলে একজন রোগীর আঁচিল অপারেশনের সময় তিনি কেঁদেছেন আর সেই কান্নার জন্য তাকে জরিমানা করা হবে- বিষয়টি মোটেই কাম্য নয়।

    পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

    মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
    • সর্বশেষ
    • সর্বাধিক পঠিত
    close