• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ৪ কার্তিক ১৪২৮
  • ||

চার অপহরণকারীর লাশ প্রকাশ্যে ঝুলিয়েছে তালেবান

প্রকাশ:  ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:৩১
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

আফগানিস্তানে চার অপহরণকারীকে হত্যার পর তাদের লাশ প্রকাশ্যে ঝুলিয়েছে তালেবান। শনিবার দেশটির পশ্চিমের শহর হেরাতে এ ঘটনা ঘটেছে বলে এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

হেরাত প্রদেশের ডেপুটি গভর্নর মৌলভী শির আহমেদ মুহাজির বলেন, চারজন পুরুষের মৃতদেহ একই দিনে বিভিন্ন জনবহুল এলাকায় প্রদর্শিত হয়েছে। এর উদ্দেশ্য ছিল এই বার্তা দেওয়া যে অপহরণের মতো অপরাধ সহ্য করা হবে না।

সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা কিছু গ্রাফিক ছবিতে দেখা গেছে, একটি পিক-আপ ট্রাকের পেছনে থাকা একটি ক্রেন একজনের লাশ উপরে টেনে তুলেছে। গাড়ির চারপাশে সশস্ত্র তালেবান যোদ্ধাদের উপস্থিতিতে লোকজন ভিড় জমাচ্ছিল তা দেখার জন্য।

আরেকটি ভিডিওতে দেখা গেছে, হেরাত শহরের একটি প্রধান গোল চত্বরে ক্রেন থেকে ঝুলানো একটি লাশের বুকে লেখা আছে, ‘অপহরণকারীদের এভাবেই শাস্তি দেওয়া হবে’।

গত মাসে তালেবানরা ক্ষমতায় আসার পর এমন ভীতিজনকভাবে শাস্তির ঘটনা এটাই প্রথম। এই ঘটনা থেকে অনেকেই আশঙ্কা প্রকাশ করছেন যে, তালেবানরা তাদের ১৯৯৬-২০০১ মেয়াদের শাসনের মতোই ফের ভয়ঙ্কর কঠোর শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করবে।

মৌলভী শির আহমেদ মুহাজির বলেন, শনিবার সকালে তালেবানের নিরাপত্তা বাহিনীকে জানানো হয় যে, শহরে একজন ব্যবসায়ী ও তার ছেলেকে অপহরণ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, এরপর পুলিশ শহরের বাইরে যাওয়ার রাস্তা বন্ধ করে দেয় এবং তালেবানরা অপহরণকারীদের একটি চেকপয়েন্টে আটক করলে ‘গুলি বিনিময় ঘটে’।

বার্তা সংস্থা এএফপিকে পাঠানো রেকর্ড বিবৃতিতে মুহাজির বলেন, ‘কয়েক মিনিটের লড়াইয়ে আমাদের একজন মুজাহিদিন আহত হয়েছে এবং চারজন অপহরণকারী নিহত হয়েছে’।

ভিডিও ক্লিপে তিনি বলেন, ‘আমরা ইসলামী আমিরাত। কারও আমাদের জাতির ক্ষতি করা উচিত নয়। কাউকে অপহরণ করা উচিত নয়’।

মুহাজির আরো জানান, শনিবারের ঘটনার আগে, শহরে আরও অপহরণের ঘটনা ঘটেছে এবং তালেবানরা একটি ছেলেকে উদ্ধার করেছে।

এর আগে একজন অপহরণকারী নিহত এবং তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। যদিও অন্য একটি অপহরণের ঘটনায় তালেবানরা ‘ব্যর্থ হয়েছে এবং অপহরণকারীরা অর্থ আদায় করতে সক্ষম হয়েছে’।

মুহাজির বলেন, ‘এটা আমাদের অনেক দুঃখ দিয়েছে, কারণ আমরা হেরাত থাকাকালীন আমাদের লোকজনকে অপহরণ করা হচ্ছে। অন্য অপহরণকারীদের কাউকে অপহরণ বা হয়রানি না করার শিক্ষা দেওয়ার জন্যই আমরা তাদের চারজনের লাশ শহরের চত্বরে ঝুলিয়ে রেখেছি এবং প্রত্যেকের কাছে এটা স্পষ্ট করে দিয়েছি যে, কেউ চুরি-ডাকাতি, খুন বা অপহরণ করলে এবং আমাদের লোকদের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নিলে কঠোর শাস্তি পাবে।’

পূর্বপশ্চিমবিডি/এসএস

আফগানিস্তান,তালেবান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close