• বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮
  • ||

কুমারীত্ব পরীক্ষায় ফেল করায় যা করলো পঞ্চায়েত নেতারা

প্রকাশ:  ১১ এপ্রিল ২০২১, ১৬:৪৫
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

কুমারীত্ব পরীক্ষায় পাস করতে না পারায় বিয়ের পাঁচ দিনের মাথায় দুই তরুণীর সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্ক ছিন্ন করার নির্দেশ দিয়েছে গ্রাম পঞ্চায়েত নেতারা।

ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের কোলহাপুর জেলায় ঘটেছে এই ঘটনা। ইতোমধ্যে দুই তরুণীর স্বামীদের ও পঞ্চায়েতের কয়েকজন সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ওই দুই তরুণী সম্পর্কে বোন। ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের বেলগাম জেলায় বসবাস করে তাদের পরিবার। গত নভেম্বরে মহারাষ্ট্রের কঞ্জরভাট সম্প্রদায়ের দুই যুবকের সঙ্গে দু’বোনের বিয়ে হয়।

গত কয়েক শতক ধরে কঞ্জরভাট সম্প্রদায়ের মধ্যে নববধূদের কুমারীত্ব পরীক্ষার রীতি চলে আসছে। সেই রীতি মেনেই বিয়ের চারদিন পর কুমারীত্ব পরীক্ষা করানো হয় দু’বোনের। তাতে ‘ফেল’ করেন তারা।

এ ঘটনায় গ্রাম পঞ্চায়েতে নালিশ করেন দু’বোনের স্বামীরা ও তাদের বাড়ির লোকজন। গত ফেব্রুয়ারিতে এ বিষয়ে সালিশে বসে পঞ্চায়েত নেতারা। সেখানে দু’বোনের সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্ক ছিন্নের রায় দেওয়া হয়।

সালিশকাণ্ডের কয়েকদিন পর ওই দুই তরুণীর মা বেসরকারী সহযোগিতা সংস্থা অন্ধশ্রদ্ধা নির্মূলন সমিতির মহারাষ্ট্র শাখায় যোগাযোগ করেন। সংস্থাটির সদস্যরা তাকে এ ব্যাপারে পুলিশের দ্বারস্থ হওয়ার পরামর্শ দেন। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় সহযোগিতাও দেন তারা।

তারপরই কোলহাপুরে সংশ্লিষ্ট থানায় ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন আইনে স্বামীদের বিরুদ্ধে মামলা করেন দুই তরুণী। মামলার অভিযোগপত্রে তাদের একজন লিখেছেন, ‘বিয়ের পঞ্চম দিনে আমাদের কে কুমারীত্ব পরীক্ষা দিতে বাধ্য করা হয় এবং তারপর থেকেই স্বামী ও শশুরবাড়ির আত্মীয়-স্বজনরা আমাদের শারীরিক নির্যাতন শুরু করে। এক পর্যায়ে তারা আমাদেরকে বাড়ি ত্যাগের জন্য চাপ দিতে থাকে এবং আমরা বেলগামে ফিরে যেতে বাধ্য হই।’

অন্ধশ্রদ্ধা নির্মূলন সমিতির মুখপাত্র সুজাতা মৈত্র এ বিষয়ে ভারতীয় দৈনিক ইন্ডিয়া টুডেকে বলেন, ‘ভারতে প্রতিদিনই ধর্মীয় প্রথার নামে নারী নির্যাতন-নিপীড়নের ঘটনা ঘটছে। এই সংগঠনের প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই আমরা যাবতীয় বৈষম্য ও অবমাননামূলক প্রথার বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান স্পষ্ট করেছি।’

‘ইতোমধ্যে থানায় মামলা করার ব্যাপারে দু’বোনকে সহযোগিতা করেছে সমিতি। তাদের ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে ভবিষ্যতেও এই সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।’ গত ‍বৃহস্পতিবার দুই তরুণীর স্বামী, শাশুড়ী এবং পঞ্চায়েতের কয়েকজন সদস্যকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে বলেও জানিয়েছেন সুজাতা মৈত্র।


পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএস

কুমারীত্ব,পরীক্ষা,বিয়
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close