• শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ২১ ফাল্গুন ১৪২৭
  • ||

দিল্লিতে ট্রাক্টর দিয়ে পুলিশকে ধাওয়া কৃষকদের, সংঘর্ষে রণক্ষেত্র

প্রকাশ:  ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১৭:২১ | আপডেট : ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১৭:৩১
অনলাইন ডেস্ক

নতুন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে আন্দোলনরত হাজার হাজার কৃষকের ট্র্যাক্টর প্যারেড ঘিরে রণক্ষেত্রের রূপ নিয়েছে ভারতের রাজধানী দিল্লির আইটিও (আয়কর ভবন) চত্বর। ভারতের ৭২তম প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষে আয়োজিত কৃষকদের ট্রাক্টর র‌্যালিতে বাধা দেওয়ায় পুলিশের সঙ্গে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) লাঠিচার্জ ও কাঁদানে গ্যাস ব্যবহার করে কৃষকদের নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে পুলিশ। এক পর্যায়ে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে কৃষকদের। এ সময় কয়েকজন আন্দোলনকারী বেপরোয়া ট্র্যাক্টর চালিয়ে পুলিশকে ধাওয়া করে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো বলছে, আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে পুলিশকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। ভাঙচুর চালানো হয়েছে একাধিক বাসে।

ভারতের ৭২তম প্রজাতন্ত্র দিবসে দিল্লির ‘রাজপথে’ বার্ষিক প্যারেড শেষ হওয়ার পর ট্র্যাক্টর মিছিলের অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। ওই সব রুটে ব্যাপক পুলিশি নিরাপত্তার পাশাপাশি ব্যারিকেড তৈরি করে রেখেছিল পুলিশ। কিন্তু প্রতিবাদী কৃষকদের একটি দল সেই রুট এড়িয়ে পৌঁছে যায় আইটিও চত্বরে। সেখানে পৌঁছতেই তাঁদের বাধা দেওয়া হয়, তাতেই শুরু হয় কৃষক-পুলিশ খণ্ডযুদ্ধ।

পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে। মৃদু লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করা হয় আন্দোলনকারীদের। কিন্তু এরপরেও দীর্ঘক্ষণ আইটিও চত্বরে ছড়িয়ে ছিটিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন কৃষকরা।

ভিডিওতে দেখা গেছে, বেপরোয়াভাবে ট্র্যাক্টর চালিয়ে পুলিশকর্মীদের চাপা দেওয়ার চেষ্টা করে দুই কৃষক। পুলিশকর্মীরাও উদভ্রান্তের মতো দৌড়ে প্রাণরক্ষার চেষ্টা করেন। অবশ্য এ ঘটনায় কেউ হতাহত হননি।

বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মীকে মারধরের অভিযোগও উঠেছে কৃষকদের বিরুদ্ধে। কিছু পুলিশকর্মী আহত হয়েছেন। এই চত্বরে রাস্তার উপর বাস দাঁড় করিয়ে ব্যারিকেড তৈরি করেছিলপুলিশ। এখানে কয়েকটি বাসে ভাঙচুর চালান কৃষকরা।

বিক্ষোভরত কৃষকরা পুলিশের ব্যারিকেড ভাঙতে শুরু করে। পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ি দিল্লিতে দুই লাখ ট্রাক্টর কেন্দ্রীয় কৃষি আইন বিরোধী মিছিলে অংশ নেয়। সংযুক্ত কিষান মোর্চার দাবি, দিল্লি পুলিশ প্রজাতন্ত্র দিবসে পাঁচ হাজার ট্রাক্টরের কুচকাওয়াজের জন্য অনুমতি দিয়েছিল। কিন্ত সেই সংখ্যা পার হয়ে যায় দুই লাখ।

এদিকে সারা ভারত কৃষক সভা জানিয়েছে, দিল্লির পাশাপাশি ভারতের সর্বত্র হবে কেন্দ্র সরকারের কৃষি আইনের প্রতিবাদ। ভারতীয় কিষান ইউনিয়নের নেতৃত্বে বিভিন্ন কৃষক সংগঠনের তরফে হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে, আগামী ১ ফেব্রুয়ারি থেকে দিল্লিতে সংসদ ভবন অভিযান শুরু করা হবে। ঘেরাও করা হবে পার্লামেন্ট। তাদের দাবি, কেন্দ্রীয় সরকারকে এই কৃষি আইন বাতিল করতেই হবে।

প্রসঙ্গত, ভারতের কেন্দ্রীয় এনডিএ সরকারের কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে গত দুই মাসের বেশি সময় ধরে দিল্লি ঘিরে রেখেছে লাখ লাখ কৃষক। সরকারের সঙ্গে তাদের একাধিকবার আলোচনা ভেস্তে গেছে। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার এই কৃষি আইনের সংশোধনী চাইলেও কৃষকদের দাবি এই আইন বাতিল করতে হবে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/ এনএন

রণক্ষেত্র,পুলিশকে ধাওয়া,দিল্লি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close