• রোববার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২০, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
  • ||
শিরোনাম

পাকিস্তানের বিতর্কিত ম্যাপে ক্ষুব্ধ ভারত, প্রতিবাদে বৈঠক ত্যাগ

প্রকাশ:  ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৭:১৬ | আপডেট : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৭:২৯
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
জুনাগড় এবং অধিকৃত কাশ্মীরকে অন্তর্ভুক্ত করে প্রকাশিত পাকিস্তানের নতুন রাজনৈতিক মানচিত্র। ছবি: দ্য ডন

ফের বিতর্কিত মানচিত্র পেশ করলো পাকিস্তান। মস্কোর বৈঠকে প্রবল ক্ষোভ প্রকাশ ভারতের। মিটিং ছেড়ে বেরিয়ে গেলেন অজিত দোভাল।

মস্কোয় গত কয়েক সপ্তাহ ধরে সাংহাই কো-অপারেশনের বৈঠক চলছে। যেখানে ভারত, পাকিস্তান, চীন সকলেই প্রতিনিধিত্ব করছে। মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সেই বৈঠকে ভার্চুয়ালি মুখোমুখি হয়েছিল ভারত এবং পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা । অভিযোগ, সেখানে পাকিস্তানের বিতর্কিত মানচিত্র পেশ করেন পাক নিরাপত্তা উপদেষ্টা। তা দেখে বেজায় চটে যান ভারতের নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল। বৈঠকের সভাপতিত্বকারী দেশ রাশিয়াকে প্রতিবাদের কথা জানিয়ে আলোচনাসভা ত্যাগ করেন দোভাল। খবর ডয়েচে ভেলে।

গত ৪ জুন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী একটি নতুন মানচিত্র প্রকাশ করেন। সেখানে কাশ্মীর, লাদাখের একাংশ এবং গুজরাটের একাংশ পাকিস্তানের বলে দাবি করা হয়। ইমরান ওই ম্যাপ প্রকাশ করার পরেই নিজেদের চরম আপত্তির কথা জানায় ভারত। বস্তুত, এর পর ওই মানচিত্র নিয়ে পাকিস্তান আর কোনো কথা বলেনি। মস্কোয় চলতি বৈঠকে সেই ম্যাপই ফের ব্যবহার করেছে পাকিস্তান। বৈঠক শুরুর পরেই ভারতের চোখে পড়ে বিতর্কিত মানচিত্রটি। সঙ্গে সঙ্গে ভারতের তরফে নিজেদের আপত্তির কথা জানানো হয়।

ভারত জানায়, রাশিয়া বৈঠকের যে অ্যাডভাইসারি জারি করেছে, পাকিস্তান তা মানেনি। নিজেদের প্রোপাগান্ডার জন্য বিতর্কিত ম্যাপ বৈঠকে নিয়ে এসেছে তারা। রাশিয়াকে সমস্ত আপত্তি জানিয়ে প্রতিবাদ হিসেবে বৈঠক ত্যাগ করেন দোভাল।

এই ঘটনার পরেই ভারতের বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব একটি কড়া বিবৃতি জারি করেন। সেখানে বলা হয়, ‘‘পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ইচ্ছাকৃতভাবে একটি কাল্পনিক মানচিত্র বৈঠকে দেখায়। গত কিছুদিন ধরেই ওই মানচিত্র নিয়ে পাকিস্তান প্রোপাগান্ডা চালানোর চেষ্টা করছে। রাশিয়ার জারি করা অ্যাডভাইসরি এবং বৈঠকের নিয়ম না মেনে কাজ করেছে পাকিস্তান।’’ পরে আরো একটি বিবৃতিতে বলা হয়, বৈঠক নিয়ে বিভ্রান্তিকর বক্তব্য পেশ করেছে পাকিস্তান।

পাকিস্তানের আগে নেপাল ভারতের তিনটি এলাকা নিজেদের মানচিত্রে দেখিয়েছিল। যা নিয়ে ভারতের সঙ্গে নেপালের প্রধানমন্ত্রী ওলির তীব্র বাদানুবাদ হয়। তবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নতুন ম্যাপ পেশ করার পরে বহু বিশেষজ্ঞই মনে করেছিলেন এই বিতর্ক বহু দূর যাবে। মঙ্গলবারের ঘটনা প্রমাণ করে দিল, পাকিস্তান নতুন মানচিত্র থেকে সরে আসবে না। ভারতও যে তার জবাব দিতে থাকবে, তাও স্পষ্ট। ফলে ভারত-পাকিস্তান বিতর্কে আরও নতুন মাত্রা যোগ হলো বলেই অধিকাংশ বিশেষজ্ঞ মনে করছেন। এমনিতেই ভারত-পাকিস্তান এবং ভারত-চীন সীমান্তে যথেষ্ট উত্তেজনা রয়েছে। মানচিত্র বিতর্ক সেই উত্তেজনা আরও উস্কে দিতে পারে বলেও মনে করা হচ্ছে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/ এনএন

ভারত,পাকিস্তান
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close