• বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৯ আশ্বিন ১৪২৭
  • ||

প্রণব মুখার্জির শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়নি

প্রকাশ:  ১৩ আগস্ট ২০২০, ০১:১২ | আপডেট : ১৩ আগস্ট ২০২০, ০১:১৫
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রণব মুখার্জি। ফাইল ছবি

ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়নি। এখনো ভেন্টিলেটর সাপোর্টে রয়েছেন তিনি।

বুধবার (১২ আগস্ট) দিল্লির সেনা হাসপাতালের তরফে মেডিকেল বুলেটিনে জানানো হয়েছে, এখনো সঙ্কটজনক অবস্থায় রয়েছেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। ১০ আগস্ট অস্ত্রোপচারের পর থেকেই তাকে ভেন্টিলেটর সাপোর্টে রাখা হয়েছে।

আনন্দবাজার পত্রিকা থেকে জানা যায়, ১০ অগস্ট পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পান এই প্রবীণ রাজনীতিক। পরে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় দিল্লির ক্যান্টনমেন্ট সেনা হাসপাতালে। মস্তিস্কে রক্ত জমাট বেঁধে যাওয়ায় জরুরি ভিত্তিতে প্রণব মুখার্জির অস্ত্রোপচার করেন চিকিৎসকরা। পাশাপাশি তার করোনা পরীক্ষা করা হয়। তাতে রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

সেনা হাসপাতালের চিকিৎসকদের সূত্রে খবর, অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে জমাট বাঁধা রক্ত বের করা সম্ভব হয়েছে। কিন্তু অস্ত্রোপচারের জায়গা থেকে রক্তক্ষরণ বন্ধ না হওয়ায় সমস্যা দেখা দিয়েছে। সাবেক রাষ্ট্রপতি নিয়মতি রক্ত পাতলা করার ওষুধ খান। সেই কারণেই অস্ত্রোপচারের জায়গা থেকে রক্তক্ষরণ কমছে না বলেই মনে করেন চিকিৎসকরা। তাই অস্ত্রোপচারের পর থেকে তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়নি। বরং কিছুটা অবনতি হয়েছে বলে চিকিৎসকদের সূত্রে জানা গিয়েছে।

তবে তিনি স্বাভাবিক ভাবেই শ্বাসপ্রশ্বাস নিচ্ছেন এবং করোনাভাইরাসের কারণে কোনো সমস্যা নেই বলেও হাসপাতাল সূত্রে খবর।

গত বছরই ভারতরত্ন পুরস্কার পেয়েছেন প্রণব মুখার্জী। সেই স্মৃতিচারণ করে টুইট করেছেন তার কন্যা শর্মিষ্ঠা মুখার্জি।

তিনি লিখেছেন, গত বছরের ৮ অগস্ট আমার জীবনের সবচেয়ে খুশির দিন ছিল। ওই দিন বাবা ভারতরত্ন পুরস্কার পেয়েছিলেন। ঠিক এক বছর পর ১০ আগস্ট তিনি গুরুতর অসুস্থ। তার জন্য যেটা সবচেয়ে ভাল, ঈশ্বর সেটাই করুন। আর আমাকে আনন্দ ও দুঃখ একই রকম ভাবে গ্রহণ করার শক্তি দিন। যারা তার জন্য উদ্বিগ্ন, তাদের সবাইকে ধন্যবাদ।

প্রসঙ্গত, ভারতের বহুল আলোচিত নেতা প্রণব মুখার্জি। তিনি বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু। তাকে অসংখ্য পুরস্কারে ভূষিত করা হয়েছে। এর মধ্যে ২০১৯ সালে ভারতের সর্বোচ্চ বেসামরিক পদক ভারত রত্ন অন্যতম। ১৯৯৭ সালে তিনি বেস্ট পার্লামেন্টারিয়ান অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন। ২০১১ সালে ভূষিত হয়েছেন বেস্ট এডমিনিস্ট্রেটর ইন ইন্ডিয়া অ্যাওয়ার্ডে।

এদিকে ভারতে করোনা এক কঠিন রূপ নিয়েছে। এ মাসের শুরুর দিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হন। করোনায় আক্রান্ত হন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান, কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা এবং কংগ্রেস নেতা সিদ্ধারামাইয়া। ভারতজুড়ে এ যাবৎ কমপক্ষে ২২ লাখ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে মারা গেছেন ৪৫ হাজার।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জেডআই

প্রণব মুখার্জি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close