• বুধবার, ০৩ জুন ২০২০, ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
  • ||

করাচিতে বিমান বিধ্বস্ত, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯৭

প্রকাশ:  ২৩ মে ২০২০, ১৫:৩৬
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

পাকিস্তান এয়ারলাইন্সের (পিআইএ) অভ্যন্তরীণ রুটের একটি বিমান লাহোর থেকে করাচি যাওয়ার পথে ৯৯ জন আরোহী নিয়ে বিমানবন্দরের কাছেই বিধ্বস্ত হয়েছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এ বিমান দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯৭ জনে দাঁড়িয়েছে। তবে আশ্চর্যজনক ভাবে দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছেন ওই বিমানটির দুই যাত্রী। তারা আপাতত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

শুক্রবার (২২ মে) দুপুরে লাহৌর থেকে উড্ডয়ন করে পিআইএ’র এয়ারবাস এ-৩২০। করাচি বিমানবন্দরে নামার মিনিট খানেক আগে ভেঙে পড়ে ওই বিমানটি। বিমানবন্দরের খুব কাছে ঘনবসতিপূর্ণ জিন্না গার্ডেন এলাকার একটি আবাসনের উপর ভেঙে পড়ে ওই বিমানটি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুর্ঘটনার আগে বিমানটি একটি মোবাইল টাওয়ারে ধাক্কা মারে।

জানা গেছে, ওই বিমানে মোট ৯১ জন যাত্রী ছিলেন। তার মধ্যে ছিলেন ৩১ জন মহিলা। সেই সঙ্গে ছিলেন আট জন বিমানকর্মীও। তাদের মধ্যে মোট ১৯ জনকে শনাক্ত করা গিয়েছে। তবে মৃতদের মধ্যে ওই আবাসনের বাসিন্দাদের কেউ রয়েছেন কি-না, তা এখনও স্পষ্ট নয়। দুর্ঘটনাস্থল ঘিরে রেখে এখনও তল্লাশি অভিযান চালানো হচ্ছে।

বিমান দুর্ঘটনায় ঠিক কতজন আহত হয়েছেন তা এখনও স্পষ্ট নয়। বিমানটি যে আবাসনের উপরে ভেঙে পড়েছিল, মনে করা হচ্ছে, সেখানকার ২৫ থেকে ৩০ জন বাসিন্দা জখম হয়েছেন। বিমান দুর্ঘটনার জেরে কিছু গাড়িও ধ্বংস হয়েছে।

দুর্ঘটনার কবলে পড়া ওই বিমানটিতেই ছিলেন ব্যাংক অব পাঞ্জাবের প্রেসিডেন্ট জাফর মাসুদ ও মোহাম্মদ জুবের নামে এক ইঞ্জিনিায়রও। আশ্চর্যজনক ভাবে ওই দু’জন প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন। মাসুদের শরীরের চার জায়গায় হাড় ভেঙেছে। অন্যদিকে দুর্ঘটনায় শরীরের কিছু অংশ পুড়ে গিয়েছে জুবেরের। তবে দু’জনেই হাসপাতালে স্থিতিশীল অবস্থায় রয়েছেন।

পিআইএ সূত্রে জানা গেছে, পাইলট এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল (এটিসি)-কে শেষ বারের জন্য যে বার্তা দিতে পেরেছিলেন তাতে স্পষ্ট, বিমানের ল্যান্ডিং গিয়ারে সমস্যা ছিল। বিমানে আগে থাকতেই কোনও সমস্যা ছিল কি-না সে প্রশ্নও উঠতে শুরু করেছে। তবে সেই সম্ভাবনার কথা উড়িয়ে দিয়েছেন পিআইএ’র চিফ এগজিকিউটিভ এয়ার ভাইস মার্শাল আরশাদ মালিক। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা।

পূর্বপশ্চিমবিডি/অ-ভি

সংখ্যা,নিহত,করাচি,বিমান,বিধ্বস্ত
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close