• শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
  • ||
শিরোনাম

দুই মাসে পাঁচ ধাপে লকডাউন তুলে নেয়ার রোডম্যাপ যুক্তরাজ্যের

প্রকাশ:  ১২ মে ২০২০, ১৫:৩৬ | আপডেট : ১২ মে ২০২০, ১৫:৪০
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক

জীবন ও জীবিকা সচল রাখাতে দীর্ঘ তিন মাসের করোনাকালীন লকডাউন শিথিল করতে চলেছে যুক্তরাজ্য। আগামী দুই মাসে পাঁচটি ধাপে লকডাউন তুলে নেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে দেশটি। প্রথম ধাপে দুই মিটার সামাজিক দূরত্বে অবস্থানের বাধ্যবাধকতা রেখে নাগরিকদের কর্মস্থলে যাওয়া-আসা একং নিত্যপণ্য কেনাকাটার বিধিনিষেধ তুলে নেওয়া হচ্ছে। খবর সিএনএনের।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন লন্ডনের স্থানীয় সময় রোববার সন্ধ্যায় এক টেলিভিশন ভাষণে আগামী দুই মাসে পাঁচ ধাপে লকডাউন তুলে নেওয়ার রোডম্যাপ ঘোষণা করেছেন ।

লকডাউন শিথিলের আগে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নিশ্চিতে গুরুত্ব আরোপ করে তিনি বলেন, এখন থেকে যুক্তরাজ্যের বাসিন্দারা ঘরের বাইরে যতক্ষণ প্রয়োজন অবস্থান করতে পারবেন। কর্মস্থলে যাওয়া-আসা এখন সবার জন্যই উন্মুক্ত। তবে শর্ত একটাই, প্রত্যেককে অবশ্যই দুই মিটার দূরত্ব বজায় রেখে অবস্থান করতে হবে।

বরিস জনসন বলেন, করোনাকালে জরুরি সেবা ছাড়া বেশিরভাগ অফিসের কার্যকম বাসা থেকেই করতে হয়েছে। তবে এখন থেকে কেউ যদি ঘরে কাজ করতে অসুবিধা হয় তবে তিনি কাজের জায়গায় গিয়ে কাজ করতে পারবেন। এক্ষেত্রে নির্মাণ ও উৎপাদনশীল কর্মক্ষেত্রকে অগ্রাধিকার দিয়েছেন। তারা চাইলে আগামী কাল থেকে কাজ শুরু করতে পারবে।

তিনি বলেন, আগামী বুধবার থেকে জনসাধারণ পার্কে যেতে পারবে, গাড়ী চালিয়ে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যেতে পারবে। এমনকি তারা খেলাধুলা করতে পারবে। তবে তা হতে হবে পরিবারের সদস্যদের মধ্যে এবং সর্বোচ্চ ৪ জন একসাথে মিলিত হতে পারবেন। তবে অবশ্যই দুই মিটার সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।

সামাজিক দূরত্ব বজায়ে ব্যর্থ হলে জরিমানা গুনতে হবে উল্লেখ করে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বলেন, সামাজিক দূরত্বের বজায়ের ক্ষেত্রে কোনোধরনের ছাড় কাউকে দেওয়া যাবে না। আমরা কঠোর দৃষ্টিতে গৃহিত পরিবর্তনগুলো পর্যবেক্ষণ করবো। যদি প্রাদুর্ভাব বাড়তে থাকে তাহলে আবারো পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে নেয়া হবে। আমি বিশ্বাস করি, লকডাউনের কারনে ব্রিটেন চরম বিপর্যয় থেকে রক্ষা পেয়েছে। এ মহামারিতে অর্ধ মিলিয়ন মানুষ মৃত্যুঝুঁকিতে ছিলেন।

তিনি বলেন, আশা করছি আগামী ১ জুন থেকে প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষার্থীরা স্কুলে ফিরে যেতে পারবে। ক্যাফে, দোকানপাটসহ হসপিটালিটি সেক্টর জুলাই মাসের প্রথম থেকে খোলা শুরু হতে পারে যদি ব্যাপক সমর্থন থাকে।এসময় গির্জা বা মসজিদের প্রার্থণা সীমিত পরিসরে শুরু হবে। ১০ আগস্টের মধ্যে উঠে যাবে সব বিধি-নিষেধ। এর আগে আকাশ পথে ব্রিটেনের বাইরে থেকে কেউ আসলে তাকে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী লকডাউন থেকে বেরিয়ে আসার পরিকল্পনা বাস্তবায়নে ১৮ মে থেকে ১০ আগস্ট পর্যন্ত ৫টি ধাপ ঘোষণা করেছেন। ধাপগুলো হলো-

১৮ মে প্রথম ধাপে আউটডোর ওয়ার্কার যেমন বিল্ডার, গার্ডেনার ও কিছু রিটেইল খুলে দেওয়া হবে। সর্বোচ্চ ৪ জন বন্ধু ও আত্মীয়ের সাথে বাইরে মিলিত হতে পারবেন। তবে মেনে চলতে হবে সমাজিক দূরত্ব।

১ জুন দ্বিতীয় ধাপে স্কুল খুলবে। ওয়ার্কাররা কাজে ফিরতে পারবেন। কর্মক্ষেত্রে থাকতে হবে দুই মিটার দুরত্বের সুযোগ। হোম ভিজিট করতে পারবেন সীমিত সময়ের জন্য। তবে ৪ জনের বেশী হতে একসাথে দেখা করতে পারবেনা।

১ জুলাই থেকে তৃতীয় ধাপে ক্যাফে এবং রেস্টুরেন্টে যাওয়া যাবে। তবে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে হবে। রেস্টুরেন্ট মালিকরা পরিস্কার পরিচ্ছন্নতায় আরো বেশী গুরুত্ব দিতে হবে।

২০ জুলাই চতুর্থ ধাপে মসজিদ চার্চসহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে। সীমিত পরিসরে বিয়ে শাদি আয়োজনে কোন বাঁধা থাকবেনা। হোটেল, টুরিস্ট সেন্টার খুলে দেওয়া হবে। তবে বন্ধ থাকবে মদের বার।

১০ আগস্ট পঞ্চমধাপে পুরোপুরি স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ফিরে পাবে যুক্তরাজ্য।

পূর্বপশ্চিম এনই

যুক্তরাজ্য,বরিস জনসন,লকডাউন শিথিল
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
Latest news
close