• শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
  • ||

স্ত্রী’র সঙ্গে দেখা করার পথে বাধা যখন করোনা

প্রকাশ:  ০৯ এপ্রিল ২০২০, ১১:৩২
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

করোনার করাল গ্রাসে আবদ্ধ গোটা দুনিয়া। প্রতিনিয়ত হুহু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। আর পৃথিবীর এমন জটিল অসুখে তালাবন্ধ বিশ্বের প্রায় সব দেশ।

বহির্বিশ্বের সঙ্গে বর্তমানে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে তালাবন্দি আমাদের দেশ ভারতও। শুধু আন্তর্জাতিক ময়দানেই নয়, ঘরে বাইরে সোশ্যাল ডিসট্যান্স বজায় রাখতে দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। বুধবার দেশজোড়া এই লকডাউনের পঞ্চদশ দিন। তবুও সচেতন নন বেশকিছু সবজান্তা পাবলিক। দেশে একলাফে যেভাবে আক্রান্তের সংখ্যা ৫ হাজার ছাড়িয়েছে, তাতেও এখনও হুঁশ ফিরছে না একদল কান্ড জ্ঞানহীন লোকেদের। ফলে এই অবস্থাতেও রাস্তাঘাটে প্রয়োজন বা অপ্রয়োজনে দেদার ভিড় জমাচ্ছেন এই সব মানুষেরা।

একদিকে যেমন সাধারণ মানুষকে সচেতনতার বার্তা দেওয়া, অন্যদিকে দেশে করোনার রাশ টানতে বদ্ধপরিকর কেন্দ্র এবং বিভিন্ন রাজ্যের সরকার। এই অবস্থায় লকডাউনের মধ্যোই পুলিশের কাছে এক অদ্ভুত দাবি জানিয়েছেন এক যুবক। আর যুবকের এমন কান্ডে কার্যত চোখ কপালে ওঠার জোগাড় পুলিশ কর্তাদের।

‘গালফ নিউজে’ প্রকাশিত তথ্যে জানা গিয়েছে, করোনা মোকাবিলায় এবং লকডাউনের মধ্যো কোনও সমস্যায় পড়লে সাহায্যের জন্য দুবাই পুলিশের হেল্পলাইন নম্বর এবং লোকাল রেডিও স্টেশনের একটি হেল্পলাইন নম্বর চালু করা হয়েছে জন সাধারণের জন্য।

যেখানে, জরুরি প্রয়োজনে বাড়ির বাইরে বেরোনোর প্রশাসনিক অনুমতি সহ নানা সংগঠন মূলক কাজ করা হয়। এই অবস্থায় এদিন ওই হেল্পলাইন নম্বরে ফোন করে পুলিশের কাছে এক অদ্ভুত আবদার করে বসেন ওই যুবক। তাঁর এমন বায়নাক্কা শুনে রীতিমতো ভিমরি খাওয়ার অবস্থা পুলিশ অফিসারদের।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন ওই যুবক পুলিশের কাছে ফোন করে তাঁর দ্বিতীয় বউয়ের কাছে যাওয়ার অনুমতি চাইছিলেন। যেখানে অত্যাবশ্যকীয় পণ্যপরিষেবা ছাড়া ঘরের বাইরে বেরোতে মানা করেছে সরকার, সেখানে যুবকের এমন অদ্ভুত দাবির কথাশুনে রীতিমত ক্ষুব্ধ পুলিশকর্তা।

যদিও রাগ সম্বরণ করে বেশ সহাস্যমুখেই ওই যুবকের প্রশ্নের উচিত জবাব দিয়েছেন দুবাই ট্রাফিকে কর্মরত সার্জেন্ট সইফ মুহাইর আল মাজৌরি।

তিনি বলেন, উপযুক্ত কারন ছাড়া কোনও ভাবেই তাঁর এই প্রস্তাবের ছাড়পত্র মিলবে না। পুলিশের এমন উত্তর শুনে নিরাশ হয়ে পড়েন ওই যুবক। ফলে যতদিন না লকডাউন উঠছে, আপাতত ততদিন প্রথম বউয়ের সঙ্গেই দিন কাটাতে হবে ওই যুবকের।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জেআর

করোনা
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close