• বুধবার, ০৩ জুন ২০২০, ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
  • ||

হাজারো মৃতদেহ স্তূপ করে ফেলা হচ্ছে, ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি কি ইতালির!

প্রকাশ:  ০৪ এপ্রিল ২০২০, ০১:০৪
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক

বিশ্বজুড়ে কান্না আর আতঙ্ক। আর শুধুই দীর্ঘশ্বাস।বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত গোটা দুনিয়া। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন। মারা যাচ্ছেন শত শত মানুষ ইতালি, স্পেন ও যুক্তরাজ্যসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাস মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। এর মধ্যে ফেসবুক, টুইটার এবং ইউটিউবে ছড়িয়ে পড়েছে ২৩ সেকেন্ডের এই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।সূত্র: আনন্দবাজার।

ভিডিওতে দেখা গেছে, বিশাল এক হল ঘরে সার দিয়ে রাখা মৃতদেহ। একটি ট্রাক থেকে গণকবরে ডাঁই করে ফেলা হচ্ছে প্যাকেটে মোড়া দেহ। গোটা ঘটনার কথা ক্যামেরার সামনে জানাচ্ছেন এক সাংবাদিক। ভিডিও শেয়ার করে পোস্টে দাবি করা হয়েছে, মৃতদেহগুলি ইতালির করোনা আক্রান্তদের।

ভিডিওটি শেয়ার করে এক ফেসবুক ইউজার লিখেছেন—

‘ইতালির করোনা আক্রান্তদের মৃতদেহ!

সৃষ্টিকর্তা আমাদের উপর দয়া করুন... হে ব্রহ্মাণ্ডের সৃষ্টিকর্তা আমাদের ক্ষমা করে দিন।’

এই তথ্য কি সঠিক?

না, ভিডিওটি ভুল। এটা ইতালির ভিডিও নয়।

আনন্দবাজার কী ভাবে যাচাই করল?

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটির ২১ সেকেন্ডে ওই সাংবাদিককে বলতে শোনা যায়, রিপটাইড ভাইরাসের কথা। riptide virus লিখে গুগ‌্ল সার্চ করেদেখা গেছে, ‘উইকিপিডিয়া’ এবং ‘আইএমডিবি’-র দু’টি লিঙ্কে এই ভাইরাসটির উল্লেখ আছে। ২০০৭ সালের মার্কিন মিনিসিরিজ ‘প্যান্ডেমিক’-এর গল্প এই রিপটাইড ভাইরাস সংক্রমণ নিয়েই।

গুগল সার্চে যা উঠে এসেছে।

কী ভাবে ছড়িয়ে পড়ল এই ভিডিও?

এই সিরিজটির নাম লিখে ইউটিউবে সার্চ করা হয়। দেখা যায় ‘করোনাভাইরাস মুভি | পার্ট টু’ লিখে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি মুভিজ সেন্ট্রালের অ্যাকাউন্ট থেকে আপলোড করা হয়েছে প্রায় দেড় ঘণ্টার একটি ভিডিও।

ইউটিউব সার্চে যা পাওয়া গেছে।

সেই ভিডিওটির ১ ঘণ্টা ১ মিনিট ৫২ সেকেন্ড থেকে ১ ঘণ্টা ২ মিনিট ১৫ সেকেন্ডের ক্লিপটাই ভাইরাল হয়ে ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

রিপটাইড নামক সেই কাল্পনিক ভাইরাসটির উৎস বার্ড ফ্লু, যা ছড়িয়ে পড়ে লস অ্যাঞ্জেলসে। ভাইরাসটির সংক্রমণের উপসর্গ জ্বর আর খিঁচুনি। ভাইরাসের সংক্রমণে হাজার হাজার মানুষ মারা যেতে থাকে। কী ভাবে এই ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানো হয়, সেটা নিয়েই গল্প।

এই সিরিজের ভিডিওটি কি না বেমালুম ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছিল করোনাভাইরাস সংক্রমণে ইতালির ভয়াবহ পরিস্থিতির ছবি বলে।

প্রসঙ্গত, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের তালিকার শীর্ষে রয়েছে ইতালি। প্রাণঘাতি ভাইরাসের ছোবলে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ছয়শ ৮১ জনে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো সাতশ ৬৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন চার হাজার পাঁচশ ৮১ জন। আর মোট আক্রান্তের সংখ্যাটি দাঁড়িয়েছে এক লাখ ১৯ হাজার আটশ ২৭ জনে। চিকিৎসার পর ১৯ হাজার সাতশ ৫৮ জন এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

করোনাভাইরাসের পরিসংখ্যান সংগ্রহকারী জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের ওয়েবসাইটে এসব তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএম

করোনাভাইরাস,ইতালি,ভাইরাল ভিডিও,মৃতদেহ
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close