• সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২২ আষাঢ় ১৪২৭
  • ||

কাবুলে শিখ গুরুদুয়ারায় হামলায় নিহত বেড়ে ২৫

প্রকাশ:  ২৬ মার্চ ২০২০, ১২:৩৯
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে শিখ ধর্মাবলম্বীদের একটি গুরুদুয়ারায় হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে অন্তত ২৫ জনে। আহত হয়েছেন আরও আটজন।

প্রায় ছয় ঘণ্টা বন্দুকযুদ্ধের পর হামলাকারী বন্দুকধারীকে হত্যা করেছে আফগান নিরাপত্তা বাহিনী।

বুধবার(২৬ মার্চ) বুধবার সকালে উপাসকরা যখন প্রার্থনা করছিলেন, তখন এই হামলা চালানো হয়।

আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, কাবুলের পুরনো শহরের শোর বাজারে অবস্থিত এ গুরুদুয়ারায় একাকি এক বন্দুকধারী হামলা করে ২৫ জনকে হত্যা করে। পরে নিরাপত্তা বাহিনী ঘটনাস্থলে গেলে গুরুদুয়ারায় অবস্থান নেওয়া সব প্রার্থনাকারীকে জিম্মি করে। ছয় ঘণ্টার চেষ্টার পর বন্দুকধারীকে হত্যা করা হয়। এসময় নিরাপত্তা বাহিনী অন্তত ৮০ প্রার্থনাকারীকে উদ্ধার করেছে।

এর আগে স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ৪৫মিনিটে হামলা শুরু হওয়ার কথা জানান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র তারিক আরিয়ান।

হামলার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে তালেবান মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ এক টুইটবার্তায় জানিয়েছিলেন, তালেবান এ হামলার সঙ্গে সম্পৃক্ত নয়।

প্রাথমিকভাবে হামলার দায়িত্ব কেউ স্বীকার না করলেও আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী সংগঠন আইএস হামলার দাবি করে জানায় আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম।

এর কয়েক ঘণ্টা আগে আফগান জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিল ঘোষণা করে যে বন্দি বিনিময়ে তালেবান ও সরকারের কর্মকর্তারা মুখোমুখি বৈঠকে বসতে যাচ্ছেন।

বিদ্রোহ বাড়ার পাশাপাশি বড় ধরনের মার্কিন সহায়তা কাটছাঁটে টলোমলো অবস্থায় অর্থনৈতিক সংকটে থাকা আফগানিস্তান। এছাড়া রাজনৈতিক অচলাবস্থা ও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধির ঘটনা সামাল দিতে গিয়ে বিপর্যয়ের মুখে দেশটি।

যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটিতে চলমান সহিংতার বিষয়টিই সামনে নিয়ে এসেছে এই হামলা।

প্রসঙ্গত, মুসলিম অধ্যুষিত আফগানিস্তানে মাত্র কয়েক হাজার শিখ ও হিন্দু ধর্মাবলম্বী বসবাস করেন। তবে কতসংখ্যক বন্দুকধারী হামলায় অংশ নিয়েছে, তা নিয়ে সাংঘর্ষিক তথ্য রয়েছে। ১৯৮০-র দশকের শেষ দিকে আফগানিস্তানের বিভিন্ন এলাকায় প্রায় পাঁচ লাখের মতো শিখ ছিল, কিন্তু দেশটিতে বছরের পর বছর ধরে চলা গৃহযুদ্ধে কারণে ও তালেবানের উত্থানের পর তাদের অধিকাংশই দেশ ছেড়ে চলে যায়।

চলতি মাসের প্রথম দিকে কাবুলে শিয়া মুসলিমদের এক অনুষ্ঠানে হামলা চালিয়েছিল আইএস। ওই হামলায় ৩২ জন নিহত হয়েছিল। কাবুলে শিখদের গুরুদুয়ারায় এমন সময়ে হামলাটি হলো, যখন যুক্তরাষ্ট্র জানিয়েছে, তারা আফগানিস্তানে ১০০ কোটি মার্কিন ডলার সাহায্য কমিয়ে দেবে। গত সোমবার আফগানিস্তান সফর থেকে ফেরার পরপরই এ ঘোষণা দেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও।


পূর্বপশ্চিমবিডি/ওআর

শিখ গুরুদুয়ারা,আফগানিস্তান,কাবুল
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
Latest news
close