• বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
  • ||

প্রেমিকা জানতোই না প্রেমিক পর্নস্টার তারকা, অতঃপর

প্রকাশ:  ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২:০৩ | আপডেট : ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২:০৮
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

এমিরেটস বিমানের অ্যাটেনডেন্ট তিনি। তবে তার আরও একটি পরিচয় আছে। তিনি একজন সাবেক পর্নস্টার। বর্তমানে প্রেমিকার সঙ্গে কাটানো অন্তরঙ্গের মুহূর্তের ভিডিও পর্নসাইটে আপলোড করে দেওয়ার কারণে তিনি অস্ট্রেলিয়ার কারাগারে বন্দী।

জানা গেছে, ব্রাজিলের এক পর্নস্টার অস্ট্রেলিয়ায় যাওয়ার পর এক নারীর প্রেমে পড়েন। একপর্যায়ে তাদের সম্পর্ক বিছানা পর্যন্ত গড়ায়। প্রেমিকার অজান্তেই বিশেষ মুহূর্তের ভিডিও ধারণ করেন ফেব্রিকো ডি সিলভা। তারপর সেসব ভিডিও পর্নসাইটে আপলোড করে দেন।

এ ঘটনায় ব্রাজিলের ৩১ বছর বয়সী ওই পর্নতারকার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। জানা গেছে, মোট ১০টি ভিডিও তিনি আপলোড করেছেন। পুলিশের কাছে ওই নারী অভিযোগ করেছেন, গোপনে সেসব ভিডিও ধারণ করেছেন সিলভা।

ব্রাজিলের ওই যুবক এমিরেটস বিমানের অ্যাটেনডেন্ট ছিলেন। সাবেক এই পর্নস্টারের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠার পর গত বছরের সেপ্টেম্বরেই অস্ট্রেলিয়ার পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

এ ঘটনায় সিলভাকে মুক্ত করতে অনলাইনে ফান্ড সংগ্রহের জন্য আবেদন জানানো হয়। আইনজীবী নিয়োগ এবং অন্যান্য খরচ হিসেবে আট হাজার ডলার প্রয়োজনের কথা বলা হয়।

তাতে বলা হয়, অস্ট্রেলিয়ার একজন নারীর সাবেক প্রেমিক ব্রাজিলের ওই যুবক। মিথ্যা অভিযোগে পুলিশ তাকে আটক করেছে। জামিন নিতে না পারলে যে কোনো দেশে তাকে পাঠিয়ে দেওয়া হতে পারে। এতে করে নিরাপরাধ ওই যুবকের জীবন শেষ হয়ে যাবে। সিলভা বড় ধরনের বিপদে পড়েছে, তাকে সাহায্যের জন্য সবার প্রতি অনুরোধ জানানো হয়।

আরো বলা হয়, যারা সিলভাকে চেনেন, তারা জানেন- এরকম কোমল হৃদয়ের মানুষ আর হয় না। তাকে আমরা জেলে রাখতে পারি না।

কিন্তু এই আহ্বানে সাড়া দিয়ে কেউই টাকা দেয়নি। এদিকে, গত বছরের জুলাইয়ে পর্যটক হিসেবে অস্ট্রেলিয়া যান সিলভা। কাল শুক্রবার তাকে আদালতে হাজির করার কথা। সিলভা মনে করেন, কাল তিনি জামিন পেয়ে যাবেন।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএম

পর্নস্টার,অন্তরঙ্গের মুহূর্তের ভিডিও,ব্রাজিল
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
cdbl
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close