• রোববার, ০৫ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭
  • ||
শিরোনাম

তাপস পালের মৃত্যু নিয়ে মমতার বিস্ফোরক মন্তব্য

প্রকাশ:  ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬:০৩ | আপডেট : ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬:০৮
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

জনপ্রিয় অভিনেতা তাপস পালের মৃত্যু নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার দাবি, কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার হাতে অকারণে লাঞ্চনা এবং গঞ্জনার শিকার হতে হয়েছে প্রাক্তন সাংসদকে। মৃত্যুর আগে তাপস পাল ভেতর থেকে ক্ষতবিক্ষত হয়ে গিয়েছিলেন। সে কারণেই অকালে চলে যেতে হলো তাকে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিযোগ, কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতিহিংসামূলক রাজনীতির শিকার হতে হয়েছে প্রয়াত অভিনেতাকে।

বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) প্রয়াত তাপস পালকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে এ মন্তব্য করেছেন তিনি।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বুধবার প্রয়াত তাপস পালকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে রবীন্দ্র সদন যান। চোখের জলে শেষশ্রদ্ধা জানান ভ্রাতৃসম অভিনেতাকে। তারপরই বিস্ফোরক অভিযোগ তোলেন মমতা।

তিনি বলেন, আজ আমি একটা কথা বলতে চাই। ভাববেন রাজনীতি করছি। কিন্তু, আমি বলতে বাধ্য হচ্ছি। তাপস মানসিকভাবে নিজেকে বিপর্যস্ত করে ফেলেছিল। বিজেপির চাপে সে ক্ষতবিক্ষত হয়ে গিয়েছিল। মৃত্যুর আগে পর্যন্ত জানতেই পারল না তার দোষটা কোথায়। একটা এন্টারটেইনমেন্ট চ্যানেলে ডিরেক্টর ছিল। সেজন্য মাইনে পেয়েছিল। সামান্য এই কারণের জন্য তাকে অ্যাডভান্স জেলে রাখা হলো। কোনও চার্জশিটও পেশ করা হয়নি। এটা কেমন নিয়ম?

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, শিল্পীদের জন্য একটা কথা বলতেই হচ্ছে। শিল্পীরা বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন জায়গায় কাজ করে। বিভিন্ন প্রোডাকশন হাউসে কাজ করে। বিভিন্ন সংস্থার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবেও কাজ করে। কিন্তু তাই বলে অকালে ঝরে যাবে মূল্যবান প্রাণগুলো? সেগুলো কী ঠিক? কেন্দ্রের এই রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক আচরণ এবং প্রতিহিংসামূলক পরিকল্পনার জেরেই আজ অসময়ে চলে গেল তাপস। কেউ যদি আইন ভাঙে, আইন আইনের মতো চলবে। তাই বলে এটা নয় যে, দিনের পর দিন এভাবে লাঞ্চনা, বঞ্চনা সহ্য করতে হবে।

শুধু তাপস পালের নয়, আরও দুটি মৃত্যুর জন্য এদিন প্রকারন্তরে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাকে দায়ী করেন মমতা।

তিনি বলেন, তিনটি মৃত্যু। একটা সুলতান আহমেদ। সুলতানের মৃত্যুর আগে তার বাড়িতে ফোন করেছিলাম। তার বাড়ির লোক বলে, একটা ফোন এলো, তারপরই বাথরুমে ঢুকে মারা গেল। প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়ের বউ মারা গেল। তাপস পালও আজ চলে গেল। তার তো যাওয়ার কথা নয়। তাপস পালের অকালমৃত্যু। সুলতান আহমেদের অকালমৃত্যু। প্রসূনের বউয়ের অকালমৃত্যু।

মমতা বলেন, আমি আজ তাপসের চোখের দিকে তাকাতে পারছি না। দিনের পর দিন গঞ্জনা, লাঞ্চনার শিকার হয়েছে তাপস। আমি মানসিকভাবে মর্মাহত।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার ভোরে মুম্বাইয়ের একটি বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তাপস পাল। তাপসের এই মৃত্যু মানতে পারছেন না তা দীর্ঘদিনের সহকর্মীরা। আচমকা এমন মৃত্যুর খবরে ভেঙেও পড়েছেন কেউ কেউ।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএম

জনপ্রিয় অভিনেতা,তাপস পাল,পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী,মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close