• বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল ২০২০, ২৬ চৈত্র ১৪২৬
  • ||

কিশোরীকে ধর্ষণ করে সাধুবাবা পড়লেন জিন্স-জ্যাকেট

প্রকাশ:  ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫:৪৫
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক

এবার ধর্ষণে অভিযুক্ত খোদ সাধুবাবা। সেই সঙ্গে, প্রশ্নের মুখে যোগী প্রশাসনের ভূমিকাও। যাঁর হাত আশীর্বাদের জন্য ওঠার কথা ছিল, সেই কিনা ছিঁড়ে খেল শরীর! এমন কাণ্ড দেখে শিউরে উঠছেন অনেকেই।

মাঘ পূ্র্নিমার মেলায় ফুল বিক্রি করতেন এক কিশোরী, তাঁকে প্রসাদ দেওয়ার নাম করে নিজের তাঁবুতে ডাকেন এক সন্ন্যাসী৷ প্রয়াগরাজ্যে ফের এক নক্কারজনক ধর্ষণের ঘটনা সামনে এসেছে৷ ফুল বিক্রি করতে আসা ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে নিজেকে সঞ্জীবজী মহারাজ নামে পরিচয় দেওয়া এক সাধু৷ এই করেই থামেননি তিনি, নিজেকে বাঁচানোর জন্য ভোল বদলে ফেলেন তিনি৷ বিপদ থেকে বাঁচার জন্য নিজের ভোল পুরো বদলে গেরুয়া থেকে সরাসরি জিনসে চলে যান, পরেন জ্যাকেটও৷

সোমবার (১০ ফেব্রুয়ারি) ভারতের প্রয়াগরাজ্য এমন নক্কারজনক ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। খবর এই মুহূর্তে।

প্রয়াগরাজ্যে একটি আশ্রম চালাতেন এই অভিযুক্ত৷ কিন্তু গণ্ডগোল করার পর তিনি নিজের আশ্রম থেকেও ভাগলওয়া হন৷ তারপর বিভিন্ন জায়গায় আশ্রয় চেয়েও তাঁকে কেউ থাকতে দেয়নি৷ তবে তিনি পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে পালিয়ে বেরাচ্ছিলেন৷ কিন্তু কিশোরীর ধর্ষণে অভিযুক্ত এই ভণ্ড বাবাকে খুঁজতে ইন্সপেক্টর ব্রিজেশ সিং আলাদা আলাদা দল গঠন করে৷ মেয়েটিকে নিজের তাঁবুতে ঢুকিয়ে জোর জবরদস্তি করে তার শরীর ছিঁড়ে খায়৷ মেয়েটি সেখান থেকে দৌড়ে প্রাণ বাঁচিয়ে পালিয়ে পুলিশের কাছে যায়৷ এখন হাসপাতালে ওই কিশোরীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা হচ্ছে।


পূর্বপশ্চিমবিডি/কেএম

ধর্ষণ,কিশোরী,ভারত
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close