• শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

কর্নাটকের ১৭ বিধায়ককে অযোগ্য ঘোষণা ভারতের সুপ্রিম কোর্টের

প্রকাশ:  ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২০:৫১
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

দীর্ঘ নাটকের পর ভারতের মহারাষ্ট্রে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হয়েছে মঙ্গলবার। সেই টানাপড়েনের রেশ টাটকা থাকতে থাকতেই, মাস কয়েক আগের আর এক রাজনৈতিক টানাপড়েনকে ভর করে ভেসে উঠল প্রতিবেশী কর্নাটকের নাম। এ রাজ্যের বিদ্রোহী ১৭ জন বিধায়ককে অযোগ্য ঘোষণা করেছে দেশটির সর্বোচ্চ আদালত।

বুধবার (১৩ নভেম্বর) ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট ওই ১৭ জনের পদ খারিজ করে কর্নাটকের স্পিকারের সিদ্ধান্তই বহাল রাখে।

তবে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে যে, ওই বিধায়করা ২০২৩ সালের মধ্যে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন। খবর এনডিটিভির।

গত জুলাই মাসে দলত্যাগ বিরোধী আইনে কংগ্রেসের ১৪ জন এবং জেডিএসের ৩ জনের বিধায়ক পদ খারিজ করে দিয়েছিলেন তৎকালীন স্পিকার। একই সঙ্গে, ২০২৩ সাল অর্থাৎ বর্তমান বিধানসভার মেয়াদ পর্যন্ত তারা ভোটে লড়তে পারবেন না বলেও নির্দেশ দেন স্পিকার।

সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে যান বিদ্রোহীরা। পাল্টা আদালতে যায় কংগ্রেস এবং জেডিএস-ও।

পদত্যাগের পরেও তাদের অযোগ্য ঘোষণা করা যায় কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হন বিধায়করা। ওই ১৭ জনকে তাদের পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পরে আর কর্নাটক বিধানসভায় ফিরে যেতে চাননি। ফলে ২৩ জুলাই আস্থা ভোটে নিজেদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণে ব্যর্থ হয় জেডিএস-কংগ্রেস জোট। এরপরেই বিজেপি সেখানে সরকার গড়ার দাবি করে।

কর্নাটকের ওই ১৭টি আসনের মধ্যে ১৫ আসনে আগামী ৫ ডিসেম্বর উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মোট ২২৪ আসনের বিধানসভায় এই মুহূর্তে বিজেপির হাতে রয়েছে ১০৬ বিধায়ক।

বিরোধী জেডিএস এবং কংগ্রেস জোটের হাতে রয়েছে ১০০টি আসন। কর্নাটকে সংখ্যা গরিষ্ঠতা ধরে রাখতে গেলে ১৫টি আসনের উপনির্বাচনে অন্তত ৬টি-তে জিততেই হবে বিজেপিকে।

গত জুলাই মাসে পরিস্থিতি বদলে যায়। কংগ্রেস-জেডিএসের ১৭ জন বিধায়ক বিদ্রোহ ঘোষণা করায় সংখালঘু হয়ে পড়ে সরকার। ২৩ জুলাই ২০১৯ আস্থা ভোটে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণে ব্যর্থ হয় কুমারস্বামী সরকার। কর্নাটকের ক্ষমতায় আসে বিজেপি। এই মুহূর্তে ২০৭ জনের বিধানসভায়, এক নির্দল বিধায়ক এবং এক কেপিজেপি বিধায়ক-সহ ১০৬ জনের শক্তি রয়েছে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পার হাতে। এই সরকার ভাঙা গড়ায় টাকার খেলা রয়েছে বলে বিজেপির বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে বিরোধীরা।

পূর্বপশ্চিমবিডি/জিএম

ভারতের মহারাষ্ট্র,কর্নাটক,সুপ্রিম কোর্ট,বিজেপি
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত