• রোববার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

কাশ্মীর পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে চীন

প্রকাশ:  ১০ অক্টোবর ২০১৯, ০৯:৪১
নিজস্ব প্রতিবেদক

ভারত সরকার গত ৫ অগাস্ট জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে রাজ্যটিকে কেন্দ্রশাসিত দু’টি আলাদা অঞ্চলে ভাগ করার পর থেকেই এর বিরোধিতা করে আন্তর্জাতিক মহলের সমর্থন আদায় করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

বর্তমানে তিনি চীন সফরে রয়েছেন। তার এই সফরে বরাবরের মতো পাকিস্তানের পক্ষে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন শি জিনপিং।

বুধবার চীনের প্রেসিডেন্ট জানান, কাশ্মীর পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছেন তারা। পাকিস্তানের প্রকৃত সমস্যাগুলির সমাধানে সাহায্য করবে চীন। এই ইস্যুতে বেইজিং যে পাকিস্তানের পাশেই দাঁড়াবে, সেটাও স্পষ্ট করে দিয়েছেন শি জিনপিং।

পাশাপাশি জিনপিং আগেই পাকিস্তানকে জানিয়েছিলেন, ভারতের সঙ্গে যে কোনও সমস্যার সমাধান শান্তিপূর্ণ আলোচানার মাধ্যমেই করতে হবে পাকিস্তানকে। কাশ্মীর নিয়ে আলোচনা করতে এর আগেও চীনে গিয়েছিলেন ইমরান খান। কিন্তু কাশ্মীর নিয়ে ভারতকে যে কিছু বলতে রাজি নয় বেইজিং তা আগেই স্পষ্ট করে দিয়েছে তারা।

চীনের সেনা মুখপাত্রও জানিয়ে দিয়েছেন, আলোচনার মধ্যেই কাশ্মীর সমস্যার সমাধান করতে হবে পাকিস্তানকে। তিনি এক বিবৃতিতেত জানিয়েছেন, কাশ্মীরসহ সব ইস্যু ভারত ও পাকিস্তানকে আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করতে হবে। দু'দেশের স্বার্থের জন্য এটাই শান্তির রাস্তা।

এদিকে, জিনপিংয়ের সফরকালে কোনও চুক্তি সাক্ষর হবে না। সফরের আগেই ভারত জানিয়ে দিয়েছে, ইমরান খানের চীন সফরের সঙ্গে কাশ্মীর ইস্যুর কোনও সম্পর্ক নেই। চীনসহ সব দেশকেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ৩৭০ ধারা বাতিল একান্তই ভারতের বিষয়। এনিয়ে কোনও আলোচনা হবে না।‌

ভারত সরকার গত ৫ অগাস্ট জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে রাজ্যটিকে কেন্দ্রশাসিত দু’টি আলাদা অঞ্চলে ভাগ করার ঘোষণা দেয়। এরপর থেকেই ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে উত্তেজনা বেড়ে যায়। এরপর কয়েকটি দেশ ভারতের পক্ষ নিলেও পাকিস্তানের পক্ষ নিয়ে কথা বলে চীন। ভারতের সঙ্গে সীমান্ত নিয়ে বিরোধে থাকা চীন কাশ্মীর নিয়ে দিল্লির পদক্ষেপ ‘মেনে নেওয়া যায় না’ মন্তব্য করে পাকিস্তানকেই সর্মথন দিয়েছে। আর আজও এমনটাই জানালো দেশটি।

পূর্বপশ্চিমবিডি/ওআর

চীন,ভারত,কাশ্মীর,জম্মু,ইমরান খান,পাকিস্তান,শি জিনপিং
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত