Most important heading here

Less important heading here

Some additional information here

Emphasized text
  • সোমবার, ১৭ জুন ২০১৯, ৩ আষাঢ় ১৪২৬
  • ||

সুদানে সামরিক হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৬০

প্রকাশ:  ০৫ জুন ২০১৯, ১৯:৫০ | আপডেট : ০৫ জুন ২০১৯, ১৯:৫৬
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট icon

সুদানের রাজধানী খার্তুমে বিক্ষোভকারীদের ওপর সামরিক বাহিনীর হামলায় এখন পর্যন্ত ৬০ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন আরও ৩০০ জন।

বুধবার (০৫ জুন) বিক্ষোভকারীদের বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। এর আগে নিহতের সংখ্যা ৩৫ বলে জানানো হয়েছিল।

গত ৩ জুন সামরিক বাহিনীর সদর দফতরের সামনে অবস্থানরত নিরস্ত্র বিক্ষোভকারীদের ওপর হামলা চালায় দেশটির ট্রানজিশনাল মিলিটারি কাউন্সিল (টিএমসি) বাহিনীর সৈন্যরা। সেনাবাহিনী বিক্ষোভকারীদের লক্ষ্য করে টিয়ার গ্যাসের শেল ও সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করে। সেসঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে হওয়া বৈঠকে নেওয়া সিদ্ধান্তগুলোকেও বাতিল ঘোষণা করা হয়।

বিক্ষোভকারীদের দাবি, তারা শান্তিপূর্ণভাবেই বিক্ষোভ চালিয়ে আসছিল। সামরিক বাহিনীই তাদের ওপর হামলা চালিয়ে শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছে। এ হামলার পর থেকেই সুদানের সামরিক বাহিনীর প্রতি নিন্দা জানিয়ে আসছে জাতিসংঘসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ।

পরে মঙ্গলবার (৪ জুন) টিএমসি নেতা জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল বুরহান জানান, আগামী নয় মাসের মধ্যেই দেশটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তিনি বিক্ষোভকারীদের ওপর টিএমসি বাহিনীর সদস্যদের হামলার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, আমরা বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে হওয়া বৈঠকে নেওয়া সিদ্ধান্ততেই ফিরে যেতে রাজি আছি।

২০১৮ সালের ডিসেম্বর থেকেই রুটি ও জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর কারণে দেশটির রাষ্ট্রপতি বশির আল-ওমরের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু হয়। বিক্ষোভকারীদের হটাতে নিরাপত্তা বাহিনীর বলপ্রয়োগের কারণে এই বিক্ষোভ উল্টো তার পতনের দাবিতে বৃহত্তর আন্দোলনে রূপ নেয়।

গত ৬ এপ্রিল থেকে খার্তুমে সামরিক বাহিনীর সদর দফতরের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ চালিয়ে আসছিলেন বিক্ষোভকারীরা। এসব ঘটনার জেরে ১১ এপ্রিল প্রেসিডেন্ট বশিরের পদত্যাগ ঘোষণা করে দেশটির সামরিক বাহিনী। এতে আনন্দে মেতে ওঠেন বিক্ষোভকারীরা। তবে সে আনন্দ ছিল কিছু মুহূর্তের মাত্র। কারণ বশিরের পদত্যাগের পর ক্ষমতা নেয় দেশটির সামরিক বাহিনী। পরে সামরিক বাহিনীকে বশিরেরই অংশ হিসেবে দাবি করে ফের বিক্ষোভ করতে থাকে আন্দোলনকারীরা।

পিপিবিডি/এস.খান

সুদান,সামরিক হামলা,বিক্ষোভ
apps
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত