• শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে ম্যার্কেলের ট্রাম্পবিরোধী বক্তব্য প্রশংসিত

প্রকাশ:  ০১ জুন ২০১৯, ১২:০০ | আপডেট : ০১ জুন ২০১৯, ১২:১৩
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক

জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলকে সম্মানসূচক ‘ডক্টর অফ ল’ ডিগ্রি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়৷ বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে দেয়া ম্যার্কেলের ট্রাম্পবিরোধী বক্তব্য প্রশংসা কুড়িয়েছে৷ ডয়েচে ভেলে

জার্মান চ্যান্সেলর অবশ্য তাঁর বক্তব্যে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নাম উচ্চারণ করেননি৷ তিনি বলেন, ‘‘প্রটেকশনিজম বা সংরক্ষণনীতি আমাদের সমৃদ্ধির ভিত্তির জন্য হুমকিস্বরূপ৷’’ এর পরিবর্তে নতুন পথ অনুসরণ করার আহ্বান জানান তিনি৷ ‘‘একপাক্ষিক ব্যবস্থার পরিবর্তে বহুপাক্ষিক, জাতীয়র পরিবর্তে আন্তর্জাতিক, স্বাতন্ত্র্যবাদীর পরিবর্তে বহির্মুখী– অর্থাৎ সংক্ষেপে আমাদের একার পরিবর্তে একসঙ্গে কাজ করতে হবে,’’ হার্ভার্ডের শিক্ষার্থীদের বলেন জার্মান চ্যান্সেলর৷

তবে বক্তব্যের সময় ম্যার্কেল সবচেয়ে বেশি প্রশংসা পান তখন, যখন তিনি বলেন, ‘‘আমাদের অবশ্যই অন্যের এবং নিজেদের সঙ্গে সৎ থাকতে হবে, যার অর্থ হচ্ছে, মিথ্যাকে সত্য না বলা এবং সত্যকে মিথ্যা না বলা৷’’ ম্যার্কেলের এই কথার পর উপস্থিত শ্রোতারা দাঁড়িয়ে হাততালি দেন৷ বিশ্বখ্যাত এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৬৮তম সমাবর্তন বক্তব্য ইংরেজিতে শুরু করেন ম্যার্কেল৷ তবে কিছুক্ষণের মধ্যেই একজন অনুবাদকের সহায়তা নিয়ে তিনি জার্মান ভাষায় বক্তব্য চালিয়ে যান৷

বক্তব্যের শুরুতে ম্যার্কেল পূর্ব জার্মানিতে তাঁর বেড়ে ওঠা ও বার্লিন প্রাচীর নিয়ে কথা বলেন৷ বক্তব্যের অবশিষ্ট অংশে তিনি বিভিন্ন সময় ‘মানুষের মনের প্রাচীর, অজ্ঞতা ও সঙ্কীর্ণ মানসিকতার প্রাচীর’ নিয়ে কথা বলেন৷ এই ধরনের প্রাচীর ভেঙে ফেলতে শিক্ষার্থীদের পরামর্শ দেন ম্যার্কেল৷

নতুন প্রযুক্তির আবির্ভাবের কারণে যে সম্ভাবনা ও হুমকি তৈরি হয়েছে সে সম্পর্কেও শিক্ষার্থীদের সজাগ থাকতে বলেন জার্মান চ্যান্সেলর৷

এছাড়া জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব থেকে বিশ্বকে বাঁচাতে ব্যক্তিগতভাবে যা করা সম্ভব তাই করার আহ্বান জানান ম্যার্কেল৷ এক্ষেত্রে তাঁর নিজেরও যা করা সম্ভব তাই করবেন বলে অঙ্গীকার করেছেন তিনি৷

পিপিবিডি/ এআর

জার্মান চ্যান্সেলর
মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত