• বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
  • ||

মোদির মন্ত্রিসভায় ঠাই পাচ্ছেন যারা

প্রকাশ:  ৩০ মে ২০১৯, ১৯:৫৩
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক

দ্বিতীয়বার ভারতের প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। তবে কাদের নিয়ে মন্ত্রিসভা গঠন করবেন তা এখনও জানা যায়নি। চলছে তাই জল্পনাকল্পনা। গত ২৪ ঘন্টায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাসভবনে একাধিক বৈঠক হয়, বৈঠক হয় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের বাড়িতেও। তিনি মন্ত্রিসভার গুরুত্বপূর্ণ পদে আসবেন বলে প্রবল জল্পনা রয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩০ মে) সকালে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে যান বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনে অমিত শাহের নেতৃত্বে নির্বাচনেও সাফল্য পেয়েছে বিজেপি, তিনি নরেন্দ্র মোদির বিশ্বস্ত।

ভারতের বিভিন্ন গণমাধ্যমসূত্রে জানা গেছে, মন্ত্রিসভার সদস্য থেকে যেতে পারেন রাজনাথ সিং, নীতিন গড়করি, পিযুষ গোয়েল, নির্মলা সীতারামন, সুরেশ প্রভু, স্মৃতি ইরানি, রবিশঙ্কর প্রসাদ, ভিকে সিং, রাম বিলাস পাশোয়ান। আমেথীতে রাহুল গান্ধীকে হারানো স্মৃতি ইরানিকে আনা হতে পারে বড় দায়িত্বে। মন্ত্রিসভায় না থাকার সম্ভাবনা অরুণ জেটলির, চিকিৎসার প্রয়োজন বলে নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখে মন্ত্রিসভায় না থাকার ইচ্ছা জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী হিসেবে কাজ করেছেন অরুণ জেটলি, সরকারের হয়ে হালও ধরতেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখে তিনি জানিয়েছেন, ‘আনুষ্ঠানিকভাবে আমি আপনাকে জানাচ্ছি, নিজেকে সময় দিতে হবে আমায়, চিকিৎসা এবং স্বাস্থ্যের কারণে, এখন নতুন সরকারের কোনও দায়িত্ব পালন আমি করতে পারব না।’ গত বছরের মে তে কিডনি প্রতিস্থাপন হয় জেটলির।

গত সন্ধ্যায় জেটলির বাড়িতে যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সরকারে যোগ না দেয়ার সিদ্ধান্ত পুর্নবিবেচনা করার আর্জি জানান তিনি। শরিকদের মধ্যে অরবিন্দ সাওয়ান্ত এবং রামবিলাশ পাশোয়ানের নাম রয়েছে। সরকারের মন্ত্রী হিসেবে নিজের ছেলে চিরাগ পাশোয়ানেরও নাম রয়েছে।

এনডিএ এর শক্তিশালী শরিক কট্টরপন্থী শিব সেনা তাদের দক্ষিণ মুম্বাইর অরভিন্দ সাওয়ান্ত মোদির নতুন মন্ত্রীসভায় পদ পেতে পারেন। শিবসেনার সঞ্জয় রাউত জানিয়েছেন, প্রত্যেক শরিকদের থেকে একজন করে মন্ত্রী হবেন বলে ঠিক হয়েছে। সংখ্যায় নিজেরাই সরকার গড়তে পারবে বিজেপি। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনগুলি মাথায় রেখে শরিকদের গুরুত্ব দিতে পারে বিজেপি। সংখ্যায় নিজেরাই সরকার গড়তে পারবে বিজেপি। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনগুলি মাথায় রেখে শরিকদের গুরুত্ব দিতে পারে বিজেপি। বুধবার অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠকে দুটি ক্যাবিনেট মন্ত্রক চেয়েছেন নীতিশ কুমার।]

আকালি দলের তরফে হরসিমরৎ কৌর বাদল অথবা তার স্বামী সুখবীর সিং বাদলের নাম রয়েছে। এর আগে মন্ত্রিসভার সদস্য ছিলেন হরসিমরৎ কৌর বাদল। নতুন সরকারে মন্ত্রীত্ব পেতে পারে এআইএডিএমকে। মোদি-মন্ত্রিসভায় যোগ দিতে পারেন দলের রাজ্যসভার সাংসদ ভৈথিলিঙ্গম। আবার উপমুখ্যমন্ত্রী ও পনিরসেলভমের ছেলে রবীন্দ্রনাথের জন্যও চেষ্টা চলছে।

দিনের শুরুতে বিভিন্ন জায়গায় গিয়েছেন দেশটির নব-নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী মোদি। রাজঘাটে গান্ধীজীর স্মৃতি সৌধে যান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং পরে সাদাইভ অটল সমাধিতে গিয়ে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর স্মৃতিতে শ্রদ্ধা জানান তিনি। ইন্ডিয়া গেটের কাছে ন্যাশনাল ওয়ার মেমোরিয়ালেও যান প্রধানমন্ত্রী মোদি।

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত